আড়াই মাস বাংলাদেশে চাল রফতানি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত

চলতি বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত প্রায় আড়াই মাস বাংলাদেশে চাল রফতানি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত।  এ বিষয়ে ভারতীয় কাস্টমস একটি চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশকে। বেনাপোল শুল্ক বিভাগ সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ বিষয় নিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে ভারতীয় কাস্টমস। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বৈদেশিক বাণিজ্য বিভাগের মহাপরিচালক আলোক চতুর্বেদীর স্বাক্ষর রয়েছে চিঠিতে।

ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের বৈদেশিক বাণিজ্য বিভাগের মহাপরিচালক আলোক চতুর্বেদীর স্বাক্ষরিত চিঠিতে জানিয়েছেন, আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ভারত বাংলাদেশে চাল রফতানি করতে পারবে না। কারণ, ভারতে অভ্যন্তরীন খাদ্যকেন্দ্রিক জনবান্ধব কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। ফলে খাদ্য বিতরণের ফলে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার এ মুহূর্তে বাংলাদেশে নেই। আর ডেপুটি হাইকমিশনার এ মুহূর্তে কক্সবাজারের উখিয়ায় আছেন। বিকেলে তার ঢাকায় ফেরার কথা আছে। ফেরার পর তার সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া যাবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘চাল মজুতের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে সরকারি অভিযান শুরু হয়েছে। যাদের গোডাউনে চাল মজুতের প্রমাণ পাওয়া যাবে তাদের গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হবে।