অবসান ঘটেনি সৌদি-কাতার দ্বন্দ্বের, ব্যর্থ ট্রাম্প

সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন চার আরব দেশ ও কাতারের মধ্যকার চলমান দ্বন্দ্ব মেটাতে ব্যর্থ হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। চলতি সপ্তাহে ট্রাম্প চলমান দ্বন্দ্ব মীমাংসার উদ্যোগ নেয়ায় কাতার ও সৌদি নেতৃত্ব ফোনে কথা বলেন এবং সংলাপে বসার বিষয়ে একমত হন। কিন্তু দু দেশের পক্ষ থেকে প্রকাশিত বিবৃতির ভাষা নিয়ে নতুন বিরোধ দেখা দেয় এবং সম্ভাব্য সংলাপের সিদ্ধান্ত বাতিল করে সৌদি আরব।

নিউ ইয়র্ক টাইমস গতকাল (শনিবার) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ডোনাল্ড ট্রাম্প কাতার ও সৌদি নেতাদের মধ্যে ওই ফোনালাপের ব্যবস্থা করেছিলেন এবং নিজের মধ্যস্থতায় এক সপ্তাহের মধ্যে তিক্ত দ্বন্দ্ব অব্সানের অঙ্গীকার করেছিলেন। গত বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউজে কুয়েতের আমিরের সঙ্গে এক বৈঠকে ট্রাম্প কাতার ও সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছিলেন, “আমি মনে করি আপনাদের খুব দ্রুত এ সমস্যার সমাধান করা উচিত।”

এরপর তিনি সৌদি যুবরাজ ও কাতারের আমিরকে ফোন করে সমস্যা সমাধানের তাগিদ দেন এবং কাতারের আমির শেখ তামিম বিন আলে সানি ও সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান ফোনালাপ করেন। ওই ফোনালাপে সংলাপে বসার সিদ্ধান্ত হয় কিন্তু পরে তা বাতিল করে সৌদি আরব। সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, কাতারের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কিউএনএ’র দেয়া বিবৃতির কারণে সংলাপের সিদ্ধান্ত বাতিল করা হয়েছে।

সৌদি আরব দাবি করছে, যুবরাজ মুহাম্মাদকে ফোন করেছেন কাতারের আমির কিন্তু কিউএনএ বলেছে, যুবরাজ আগে ফোন করেছেন; এ ঘটনাকে সৌদি আরব প্রটোকল লঙ্ঘন বলে মনে উল্লেখ করেছে।