কোরবানির বর্জ্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণের নির্দেশ

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (উত্তর-দক্ষিণ) এলাকায় কোরবানির বর্জ্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণ করার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র সাঈদ খোকন। মঙ্গলবার রাজধানীর নগর ভবনে ঢাকা দক্ষিণ ও ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এমন ঘোষণা দেন সাঈদ খোকন।

মেয়র জানান, কোরবানির দিন দুপুর ২টা থেকে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ শুরু হবে। এরপর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নগরবাসীকে পরিষ্কার নগর উপহার দেয়া হবে। এরপরও যদি রাস্তায় কোরবানির বর্জ্য দেখা যায় থাকলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকার জন্য ০৯৬১১০০০৯৯৯ নম্বরে ফোন করে জানানোর অনুরোধ জানানো হয়েছে। আর ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকার জন্য নম্বর-৯৮৩০৯৩৬। এরপরও কোথাও বর্জ্য থাকলে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তথ্য দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এ বছর রাজধানীতে ৪ লাখ ৭৫ হাজার পশু কোরবানির সম্ভাবনা আছে। ফলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ১৮ হাজার টন এবং উত্তর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ১০ হাজার টন বর্জ্য উৎপন্ন হবে। ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে ৬২৫টি এবং উত্তর সিটিতে ৫৪৯টি পশু কোরবানির স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। পশু জবাইয়ের জন্য ঢাকা দক্ষিণে ৬২৫ জন এবং উত্তরে ৫৯২ জন ইমাম ও কসাই উপস্থিত থাকবেন। এ দিকে ঢাকা দক্ষিণ এলাকায় ১৫টি এবং উত্তরে ৮টি পশুর হাটের বর্জ্য অপসারণের জন্য ১৭ হাজার পরিচ্ছন্নতাকর্মী কাজ করবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বেলাল, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক এয়ার কমডোর শফিকুল আলম, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেজবাহুল ইসলামসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।