বাড়িতে একা পেয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ!

এবার গৃহবধূকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করল প্রতিবেশী যুবক। কাউকে জানালে প্রাণে মারার হুমকি দেয়। প্রমাণ লোপাটে নির্যাতিতার গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করে অভিযুক্ত।

অগ্নিদগ্ধ নির্যাতিতাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় মালদা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়। অভিযুক্ত শঙ্কর রায় পলাতক। গত সোমবার বাড়িতে একাই ছিলেন ওই গৃহবধূ। সেই সুযোগে তাঁর ঘরে ঢুকে প্রতিবেশী যুবক শঙ্কর রায় তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। বিষয়টি পরিবারের সদস্যদের জানালে প্রাণে মারার হুমকি দেয় সে।

বৃহস্পতিবার শাশুড়িকে বিষয়টি জানান ওই নির্যাতিতা। বিষয়টি গ্রামে জানাজানি হয়। অভিযুক্ত শঙ্কর রায় চড়াও হয় নির্যাতিতার বাড়িতে। গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করে ওই গৃহবধূকে। অগ্নিদগ্ধ নির্যাতিতাকে প্রথমে হবিবপুরের বুলবুলচণ্ডী আর এন রায় গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে পরে মালদা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয় ওই নির্যাতিতাকে।

গৃহবধূর স্বামী কর্ম সূত্রে ভিনরাজ্যে রয়েছেন। ঘটনার দিন শাশুড়ি, ননদও বাড়িতে ছিলেন না। সেই সুযোগই নেয় শঙ্কর। হবিবপুর থানায় মামলা হয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।