মিয়ানমার সীমান্তে বাংলাদেশ ভুখন্ড লক্ষ্য করে গুলি

বান্দরবান-মিয়ানমার সীমান্তের তুমব্রু বিজিপি ক্যাম্প থেকে বাংলাদেশ ভুখন্ড লক্ষ্য করে গুলি বর্ষনের ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার দুপুর ১২টা ৪৫ মিঃ ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু সীমান্তে এঘটনা ঘটেছে। এ গুলি বর্ষনের ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। তবে এ ঘটনায় নতুন করে সীমান্তে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

বিজিবি’র পক্ষ থেকে সীমান্ত এলাকায় অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে। দিন দুপুরে বাংলাদেশ ভুখন্ড লক্ষ্য করে গুলি বর্ষনের ঘটনায় সীমান্ত এলাকার লোকজনের মধ্যে ব্যাপক আতংক দেখা দিয়েছে। স্থানীয়রা জানান, মিয়ানমারের তুমব্রু, বুচিডং, ঢেকিবনিয়াসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় বিজিপি ক্যাম্পে রোহিঙ্গ্যা বিচ্ছিন্নতাবাদী একটি সংগঠন হামলার ঘটনার পর সীমান্ত এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। নারী-শিশুসহ হাজার হাজার রোহিঙ্গ্যা সীমান্তের কাটাতারের বেড়া ক্রস করে বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টা অব্যহত রেখেছে। গত রাতে ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার কারণে বাড়ী-ঘর ছেড়ে চলে আসা রোহিঙ্গ্যারা সীমান্ত এলাকা থেকে সীমান্তের কাছাকাছি আত্মিয় স্বজনের বাড়ীতে আশ্রয় নেয়। আজ শনিবার সকাল থেকে রোহিঙ্গ্যারা আবারো সীমান্ত এলাকায় জড়ো হতে শুরু করেছে।

এদিকে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি) সীমান্তে রোহিঙ্গ্যাদের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে দিনরাত এক করে স্থানীয় জনগনকে সাথে নিয়ে সীমান্ত এলাকায় কড়া প্রহরা অব্যহত রেখেছে। এ পর্যন্ত সীমান্ত এলাকা দিয়ে কোন রোহিঙ্গ্যাকে এ দেশে প্রবেশ করতে দেয়নি বলে জানান ৩৪ বিজিবি’র কমান্ড্রা লেঃ কর্ণেল মনজুরুল হাসান খান। তিনি জানান, সীমান্ত পরিস্থিতি এখন অনেকটা শান্ত।

মিয়ানমারের রোহিঙ্গারা জানান, তারা পরিবারের শিশু ও নারীদের সাথে নিয়ে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশ সীমান্তে এসেছেন। মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও এলাকার লোকজন তাদেও বাড়ী ঘর জালিয়ে দিয়েছে। তাদেও অত্যচার সহ্য করতে না পেরে তারা ঘর-বাড়ী ছেড়ে পালিয়ে বাংলাদেশে ঢুকার চেষ্টা চালাচ্ছেন।

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি