অনেক দিন পর বলিউডে পা রাখছেন কোন বাঙ্গালি মেয়ে

অনেক দিন পর বলিউডে পা রাখতে চলেছেন কোন বাঙ্গালি মেয়ে। আর তিনি হলেন ওপার বাংলার মেয়ে কলকাতার পায়েল ঘোষ। সঞ্জয়ের আসন্ন ‘পাটেল কি পাঞ্জাবি শাদি’ ছবির মাধ্যমে হিন্দি চলচ্চিত্র জগতে অভিষেক হতে চলেছে এই বাঙালি মেয়ের। এর আগে দক্ষিণে একাধিক ছবিতে নায়িকা হিসেবে দেখা গেছে তাঁকে।

শর্মিলা ঠাকুরের রূপের ঘোর এখনো লেগে আছে সে সময়ের দর্শকদের। সেই পথ ধরে রানি মুখার্জি, বিপাশা বসুরাও এসেছিলেন। কিন্তু এরপর কী যে হলো, বলিউডে তেমন বাঙালি নায়িকার খোঁজ মেলেনি। এবার দেখা যাবে পায়েলকে। ‘প্যাটেল কি পাঞ্জাবি শাদি’ ছবিতে পায়েলকে বলিউড অভিনেতা বীর দাসের নায়িকা হিসেবে দেখা যাবে। এ ছাড়া সঞ্জয়ের এই রোমান্টিক-কমেডি ছবিতে অন্যান্য প্রধান চরিত্রে দেখা যাবে পরেশ রাওয়াল, ঋষি কাপুর এবং প্রেম চোপড়াকে।

পায়েল তাঁর অভিজ্ঞতার কথা জানাতে গিয়ে বলেন, ‌‌‌‘খুব মজা করে কাজ করেছি। আমি খুবই ভাগ্যবতী যে শুরুতেই প্রেম চোপড়া, পরেশজি ও ঋষিজির মতো বলিউডের বড় তারকাদের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। এই তিন বলিউড ব্যক্তিত্বর ছবি দেখে বড় হয়ে ওঠা। এঁদের প্রত্যেকের অনেক বড় ভক্ত আমি। তাই পরেশজি, ঋষিজি ও প্রেমজির সঙ্গে এক ছবিতে কাজ করা আমার সেরা পাওয়া। এই তিন অভিনেতার ব্যবহারে কখনই প্রকাশ পায়নি যে তাঁরা কত বড় স্টার। ছবিতে পরেশজি আমার বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন। শুটিংয়ের সময় আমার মনে হয়েছিল, আমি যেন সত্যি সত্যি ওনারই মেয়ে—উনি আমাকে এতটাই আপন করে নিয়েছিলেন। আর ঋষিজি তো ভীষণই হাসিখুশি, মিষ্টি, ভদ্র ও বিনয়ী মানুষ। প্রেমজিও খুব ভালো মানুষ। কাজ করতে করতে এঁদের প্রত্যেকের থেকে অনেক কিছু শিখেছি।’

ছবিতে পায়েল তাঁর অভিনীত চরিত্রটি সম্পর্কে জানান, ‘ছবিতে আমাকে এক রক্ষণশীল গুজরাটি পরিবারের ঘরোয়া মেয়ের চরিত্রে দেখা যাবে। আমার বাবার পরেশ রাওয়াল খুবই গোঁড়া। আমার সঙ্গে পাঞ্জাবি যুবক বীরের ভালোবাসা হয়। বাবা আমাদের সম্পর্কের একদম বিরুদ্ধে। তিনি কখনই চান না তাঁর মেয়ে অন্য জাতের কাউকে বিয়ে করুক। বীরের বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঋষিজি। তিনি আবার এই বিয়ের পক্ষে। সব মিলিয়ে এই ছবিটি পারিবারিক হাসির ছবি।’

বলিউডে কাজ করার পর আবার বাংলা ছবিতে কাজ করবেন কিনা সেই সম্পর্কে পায়েল বলেন, ‘এপার অথবা ওপার বাংলা যেকোনো বাংলা থেকে ডাক এলে নিশ্চয় যাব। সবার আগে আমি বাঙালি।’

১৫ সেপ্টেম্বর মুক্তি পেতে চলেছে ‘প্যাটেল কি পাঞ্জাবি শাদি’ ছবিটি।