ধীর গতিতে চলছে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে যানবাহন বিপাকে পড়েছে যাত্রীরা

ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া অংশে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকেই ধীর গতিতে চলছে যানবাহন।

গজারিয়ার মেঘনা-গোমতী সেতু থেকে মেঘনা সেতু পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার সড়ক জুড়ে যানবাহনের দীর্ঘ সারি থাকায় বিপাকে পড়েছে এ রোডের যাত্রীরা। ঢাকামুখী একেশটি যানবাহনকে ১৩ কিলোমিটার সড়ক পথ পাড়ি দিতেই প্রায় ৩ ঘন্টা সময় লাগছে বলে জানিয়েছেন ভবেরচর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সাইফুর রহমান মজুমদার।

তিনি আরো জানান- আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত থেকেই অতিরিক্ত যানবাহনের চাপ শুরু হয়। এরপর থেকে গজারিয়া অংশের ওই ১৩ কিলোমিটার সড়কে যানবাহনের সারি দীর্ঘ হতে থাকে। এর ফলে থেমে থেমে চলছে এ রোডের যানবাহন। ফলে গন্তব্যে পৌছতে যানবাহনের অনেক বেশি সময় লাগছে।

এছাড়াও কুমিল্লার মহাসড়ক হচ্ছে চার লেনের আর মেঘনা-গোমতী সেতু হচ্ছে দুই লেনের তাই চার লেনের যানবাহনগুলো দুই লেনে প্রবেশ করলে এ মহাসড়কে যানবাহনের দীর্ঘ সাড়ি সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে ঢাকাগামী পণ্য ও যাত্রীবাহী যানবাহনকে প্রায়ই যানজটের কবলে পড়তে হচ্ছে। মহাসড়কের যানবাহনের নিয়ন্ত্রণে আনতে ভবেরচর হাইওয়ে ফাঁড়ির পুলিশ ও আনসার সদস্যরা কাজ করছে ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঈদকে সামনে রেখে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া অংশে ঢাকা চট্রগ্রাম মহাসড়কে যানজটের ভোগান্তিতে যাতে কেউ না পড়ে সে লক্ষে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম (পিপিএম) নানান দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।

আব্দুল্লাহ আল-মাসুদ, মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি