বন্যাদুর্গতদের উদ্ধার কাজে নেপাল উড়ে গেলেন মনীষা

নেপালে বন্যাদুর্গতদের সহযোগিতা করতে গেলেন মনীষা কৈরালা। ৪৭ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী এখন নানা ধরনের সামাজিক কর্মকান্ডের সাথে যুক্ত। নেপালে ভূমিকম্পের পর এবার ভয়াবহ বন্যা। সেই বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে ছুটে গেলেন এই তারকা।

নিজের জীবনে বয়ে গেছে অনেক ঝড়। ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই, বিবাহ বিচ্ছেদ সহ নানা জটিলতার মুখোমুখি হয়েছেন মনীষা। তবে সেসব প্রতিকূল স্রোত, ঝড়ঝাপটা সামলে নিয়েছেন তিনি। রুপালি পর্দার গ্ল্যামারে ভরা মিথ্যে জীবন থেকে বেরিয়ে অন্য এক জীবনের স্বাদ পেয়েছেন। ভীষণ রকমের মানবিক সেই জীবনে সাধারণ মানুষের নিত্যদিনের টিকে থাকার লড়াইটা দেখেন বলেই তাঁদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তিনি।

২১ আগস্ট দুপুরে মনীষা টুইট করছেন, ‘বছর খানেক আগে ভূমিকম্পে কার্যত লন্ডভন্ড হয়ে যায় এই দেশ। এবার বন্যার থাবা…আমার মন ভেঙে গেছে।’ শুধু টুইট করে থেমে থাকেননি মনীষা। নিজের জন্মভূমির মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াতে বন্যা জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিলের (ইউএনএফপিএ) ত্রাণকর্মী দলের সঙ্গে উদ্ধার কাজে যোগ দিতে নেপাল উড়ে গেছেন মনীষা। হয়তো সর্বক্ষণ দুর্গত মানুষের জন্য কাজ করতে পারবেন না। কিন্তু তাঁর উপস্থিতি নেপালের মানুষের মুখে হাসি ফোটাবে। ত্রাণকর্মীদের উজ্জীবিত করবে। সরাসরি দুর্গত এলাকায় ছুটে যাওয়াও তো অনেক তারকার জন্য বিরল ঘটনা।

সুভাষ ঘাইয়ের ‘সওদাগর’ চলচ্চিত্রটি দিয়ে নেপালি সুন্দরী মনীষা কৈরালার বলিউডে অভিষেক হয়েছিল। ২০১২ সালে তাঁর ক্যানসার ধরা পড়ে। সফল চিকিৎসার পর সেরেও ওঠেন।