প্রকৃতির চোখরাঙানিতে বাধার মুখে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজ

আজ অনুশীলন করার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়া দলের। কিন্তু গত রাত থেকে শুরু ঝুমবৃষ্টি সেটি আর হতে দিল কোথায়? বৃষ্টি থেমেছে বেলা ১১টার দিকে। অস্ট্রেলিয়া দল মাঠে এসে পৌঁছেছে বেলা পৌনে একটার দিকে। ১০টার অনুশীলন তাদের শুরু করতে হয়েছে একটায়।

কিন্তু সেটিও শেষ হয়নি ঠিকমতো। চনমনে রোদকে হটিয়ে বেলা আড়াইটার দিকে আবারও শুরু বৃষ্টি। রোদ-বৃষ্টির এই লুকোচুরির মধ্যেই অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ দুই দল সারছে প্রস্তুতি। কিন্তু ২৭ আগস্ট থেকে শুরু ঢাকা টেস্ট ঠিকঠাক হবে তো? বৃষ্টিই তুলে দিচ্ছে প্রশ্নটা।
দেশের মধ্যভাগে এখন মৌসুমি বায়ু সক্রিয়। যেটির প্রভাবে হচ্ছে বৃষ্টি। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে যে পূর্বাভাসের কথা বলা হয়েছে, তাতে বড় অনিশ্চয়তায় পড়ে গেছে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজ। পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী দুই দিন বৃষ্টির প্রাবল্য কম থাকলেও ২৬ আগস্ট রাত থেকে শুরু হবে প্রবল বৃষ্টি। এ সময় বৃষ্টির মাত্রা থাকতে পারে ৩০ মিলিমিটার।
বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর প্রথম আলোকে জানিয়েছে, ২৭ আগস্ট বিকেলে কমে এলেও সন্ধ্যা বা রাতের দিকে বাড়তে পারে বৃষ্টির মাত্রা। শুরু হতে পারে টানা বর্ষণ, যেটির স্থায়িত্ব হতে পারে দু-তিন দিন এমনকি তারও বেশি। টানা বর্ষণ কত দিন হতে পারে, এটি অবশ্য বোঝা যাবে বৃষ্টি শুরুর পর। তবে আপাতত যা পূর্বাভাস, তাতে ঢাকায় অনুষ্ঠেয় প্রথম টেস্টের পুরো পাঁচ দিনে বৃষ্টির প্রকোপ থাকতে পারে বলেই মনে হচ্ছে। নির্বিঘ্নে খেলা না-ও হতে পারে।
আবহাওয়া অনেক সময়ই অপ্রত্যাশিতভাবে রং বদলায়। এটাই এখন একমাত্র আশা।

নিরাপত্তা, ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া দলের খেলোয়াড়দের ঝামেলা—একে একে নানা বাধা পেরিয়ে যখন বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজ আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে, তখন আবার প্রকৃতির চোখরাঙানি।