পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিবে ইরানঃ জারিফ

তেহরানের শান্তিপূর্ণ পরমাণু ইস্যুতে ২০১৫ সালে ইরান ও ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা সমুন্নত রাখাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাওয়াদ জারিফ।

গতকাল (রোববার) রাতে টেলিভিশনে দেয়া সাক্ষাৎকারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ বলেন, পরমাণু সমঝোতা পত্র বা জেসিপিওএ পরিপূর্ণভাবে বাস্তবায়নের প্রতি তার মন্ত্রণালয় সর্বোচ্চ প্রাধান্য দেবে। তিনি আরো বলেন, জেসিপিওএ’কে সঠিক ধারা ও গতিতে অব্যাহত রাখা এবং আমেরিকাকে এ সমঝোতা লঙ্ঘন করা থেকে বিরত রাখাই হবে তার মন্ত্রণালয়ের প্রথম কাজ। জারিফ বলেন, “ইরানের পক্ষ থেকে কোনো মূল্যের বিনিময়ে আমেরিকাকে পরমাণু সমঝোতা বাস্তবান বা তা লঙ্ঘন করার সুযোগ দেব না।”

প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির নতুন মন্ত্রিসভায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদে আবারো নিয়োগ পেয়েছেন মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ। রুহানির প্রথম মেয়াদে ইরান এবং ছয় জাতিগোষ্ঠীর মধ্যে স্বাক্ষরিত সমঝোতাকে তার প্রশাসনের পররাষ্ট্র নীতিতে একটি উল্লেখযোগ্য অর্জন হিসেবে মনে করা হয়। এই সমঝোতা চূড়ান্ত করার বহুপাক্ষিক আলোচনায় জাওয়াদ জারিফ প্রধান আলোচক ছিলেন।

এছাড়া, আগামী চার বছর ইরানের অর্থনৈতিক কূটনীতি এবং প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্কোন্নয়ন করা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পাবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাওয়াদ জারিফ।