সুযোগ পেলে অবশ্যই ভালো বোলিং করবঃ নাসির

সর্বশেষ ২০১৫ সালে সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে দেশের হয়ে টেস্ট খেলেছিলেন নাসির। এরপর আর সাদা জার্সি গায়ে উঠেনি তার। শেষমেশ দুই বছর পর জাতীয় দলের ছেয়ার পেলেন নাসির। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঘোষিত প্রথম টেস্টে ১৪ জনের একজন নাসির।

নাসির দলে জায়গা পেয়েছেন সার্বিক পারফরম্যান্স বিবেচনায়। বল হাতে দলের প্রয়োজনে আলো ছড়ান তিনি। নিজ মুখেও স্বীকার করলেন ব্যাটিংয়ের চেয়ে বোলিংটা বেশি উপভোগ করেন। আজ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) লাউঞ্জে বসে সাংবাদিকদের নাসির বলেন, ‘আমি বোলিংটা সবসময়ই উপভোগ করি। সুযোগ পেলে অবশ্যই ভালো বোলিংও করব।’

ঘরোয়া টুর্নামেন্টগুলো নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করেই সফলতা পেয়েছেন নাসির হোসেন। প্রথম টেস্টের একাদশে জায়গা পেলেই সে অনুযায়ী পারফর্ম করবেন। ‘আমি জাতীয় লিগ ও বিসিএল খেলেছি একটা নির্দিষ্ট প্ল্যান নিয়ে। সেই প্ল্যানে আমি সফল। জাতীয় দলে খেললেও প্ল্যান পরিবর্তন আমি করছি না।’

নাসির যখন ব্যাটিংয়ে নামের তখন উইকেট থাকে দুই-একটা, ফলে তাকে দেখেশুনেই ব্যাটিং করতে হয়। মাঝে মধ্যে দলের প্রয়োজনে দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করেন নাসির। ‘আমি সাধারণত ছয় কিংবা সাতে খেলতে নামি। তখন ব্যাটসম্যান থাকে দুই একজন। কাজেই আমি সেভাবেই খেলি। আর ব্যাটসম্যানরা আউট হয়ে গেলে, আমি চেষ্টা করি দ্রুত রান করার।’