বার্সেলোনায় উপর সন্ত্রাসী হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস

বৃহস্পতিবারে স্পেনের বার্সেলোনায় উপর রক্তক্ষয়ী সন্ত্রাসী হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

বার্সেলোনায় সন্ত্রাসী হামলায় হতাহতের ঘটনায় তিন দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছেন স্পেনের প্রধানমন্ত্রী।

বার্সেলোনা শহরের জনপ্রিয় পর্যটন এলাকা লাস র‍্যামব্লাসে গতকাল বিকেলের সন্ত্রাসী হামলায় অন্তত ১৩ জন নিহত হয়। আহত শতাধিক লোক। মৃতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। লাস র‍্যামব্লাসে পথচারীদের ভিড়ের মধ্যে একটি ভ্যান তুলে দিয়ে এ হামলা চালানো হয়। এটিকে ‘জিহাদি হামলা’ বলেছেন স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাজয়।

আইএসের কথিত সংবাদ সংস্থা ‘আমাক’ বলেছে, বার্সেলোনায় যারা হামলা চালিয়েছে, তারা তাদের (আইএস) যোদ্ধা। এই হামলাকে প্রতিশোধ হিসেবে বর্ণনা করেছে আইএস। বার্সেলোনায় হামলা চালিয়ে ভ্যানচালক পালিয়ে যান। তিনি এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। তাঁকে ধরতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তৎপরতা চালাচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, ভ্যানটি আঁকাবাঁকাভাবে সামনে এগোচ্ছিল। খুব দ্রুতগতিতে লোকজনকে পিষ্ট করছিল। যতটা সম্ভব তত বেশিসংখ্যক মানুষকে পিষ্ট করার চেষ্টা করছিল ভ্যানটি। ভ্যানের চাপায় লোকজন সড়কে লুটিয়ে পড়ছিল।

পথচারীদের পিষ্ট করার পর ভ্যানচালককে হেঁটে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে দেখা গেছে।

হামলার পর সশস্ত্র পুলিশের সদস্যরা দ্রুত ঘটনাস্থলে আসেন। তাঁরা ঘটনাস্থল ঘিরে ফেলেন। ঘটনাস্থল থেকে লোকজনকে সরে যেতে বলেন।

বার্সেলোনায় ভ্যান হামলায় ঠিক কতজন জড়িত, তা এখনো স্পষ্ট নয়। এই হামলার ঘটনায় ইতিমধ্যে দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁদের মধ্যে ভ্যানচালক নেই।

হামলার নিন্দা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সহায়তার জন্য সবকিছু করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।