ফোনের শোরুম উদ্বোধনীতে সানি লিওন, ১০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা!

বলিউডে মাত্র পাঁচ বছরের ক্যারিয়ারে সানি লিওনের অবস্থান কোথায় পৌঁছেছেন তা বোঝা গেল গতকাল কোচিতে। ভারতের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের কোচি শহরে একটি স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের শোরুম উদ্বোধন করতে গিয়ে তিনি আটকা পড়লেন জনস্রোতে।

সানিকে দিয়ে কোচির মহাত্মা গান্ধী রোডে একটি মোবাইল ফোনের দোকানের মালিক তার নতুন দোকানের উদ্বোধন করাচ্ছিলেন। সানিকে দেখার জন্য দোকানের সামনে ভিড় জমান হাজার হাজার মানুষ। রাস্তা অবরোধ করে একটিবার সানিকে দেখার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েছিল কয়েক হাজার মানুষ।১ তাকে দেখতে ও সামান্য স্পর্শ করার ইচ্ছা বুকে নিয়ে এই জনতা ভিড় জমিয়ে ছিলেন। এলাকায় নজিরবিহীন যানযটের সৃষ্টি হয়ে যায়। ভিড় ও যানজট সামলাতে নাভিশ্বাস ওঠে পুলিশের।

কোচিতে গিয়ে এমন ভালোবাসা পেয়ে বলিউড অভিনেত্রী নিজেও অভিভূত। ভড়কে না গিয়ে মজা নিলেন সানি। অবশ্য নিজের জন্য এত মানুষের ফিদা হওয়ার বিষয়টা উপভোগই তো করারই কথা। রীতিমত টুইটারে সেই জনস্রোতের ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করে ৩৬ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘কেরালার কোচিতে আমার গাড়ি জনসমুদ্রে ভাসছিল। তাদের ভালোবাসা ও সমর্থনে আমি অভিভূত। কেরালাকে কখনোই ভুলব না। বলার মতো কোনও ভাষা নেই। কোচির মানুষকে ধন্যবাদ জানানোর মতো শব্দ খুঁজে পাচ্ছি না।’

অন্ধকার জগত ছেড়ে আসা সানি লিওন যে বলিউডে ক্রমশ নিজের অবস্থান পাকা করে নিচ্ছেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। দিনে দিনে তার জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে।

সানি লিয়নকে দিয়ে দোকান উদ্বোধন করানোর জ্বালা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন ভারতের কোচির ঐ মোবাইল ফোনের দোকানের মালিক। শুধু সেই দোকান মালিক নয়, আরও ১০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। সানি পৌঁছানোর আগেই রাস্তা বন্ধ হয়ে যায় জনসুমদ্র। সেটা টপকাতে হয় সানির গাড়িকে। মুক্তির প্রতীক্ষায় থাকা ‘বাদশাও’ অভিনেত্রীর আগমনে বেশ হট্টগোলও হয়েছে কোচির রাস্তায়। এ জন্য সেই শো রুমের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে কোচি পুলিশ।

এদিকে দারুণ খুশি সানি। কোচির ভক্তরা তার জন্য যে উন্মাদনার নিদর্শন রেখেছেন তার জন্য তিনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন।