বন্দুকধারীদের হামলায় গুয়েতেমালার হাসপাতালে শিশুসহ নিহত ৭

গুয়েতেমালার একটি হাসপাতালে কয়েকজন বন্দুকধারীর হামলায় দুই শিশুসহ কমপক্ষে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবারের ওই হামলায় আরো ১২ জন আহত হয়েছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হামলাকারীরা পুলিশের তত্ত্বাবধানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক বন্দীকে মুক্ত করতেই ওই হামলা চালিয়েছে।

পুলিশের মুখপাত্র জর্জ আগুইলার জানিয়েছেন, মারা সালভাতরুকা এলাকার আন্ডারসন ড্যানিয়েল ক্যাবরেরা নামে একটি অপরাধ চক্রের সদস্য চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে এসেছিলেন। সন্দেহভাজন ওই বন্দুকধারীরা ড্যানিয়েলকে উদ্ধারের জন্যই এই হামলা চালিয়েছে।

বন্দুকধারীরা মধ্য আমেরিকার কুখ্যাত সালভাট্রুসা গ্যাংয়ের সদস্য। হামলাকারীরা একটি গাড়ি নিয়ে হাসপাতালে পৌঁছায় এবং ক্যাবরেরাকে (২৯) তুলে নিয়ে যায়। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, হামলায় দুই কারারক্ষী, হাসপাতালের দুই কর্মী, দুই শিশু এবং প্রাপ্তবয়স্ক একজন নিহত হয়েছে। সাত সদস্যের ওই অপরাধ চক্রের পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে বেশ কয়েকটি রাইফেল উদ্ধার করা হয়েছে।

২০১৩ সাল থেকেই কারাভোগ করছেন ড্যানিয়েল। গুয়েতেমালার প্রেসিডেন্ট জিমি মোরালস জানিয়েছেন, ওই হামলার পেছনে দায়ীদের খুঁজে বের করতে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। তাদের বিচারের আওতায় শাস্তি দেয়া হবে। ওই হামলাকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বলে উল্লেখ করেছেন জিমি মোরালস। তিনি এই হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।