গণমাধ্যমের সঙ্গে শুরু হল ইসির দ্বিতীয় দিনের সংলাপ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ধারাবাহিক সংলাপের অংশ হিসেবে গণমাধ্যমের সঙ্গে দ্বিতীয় দিনের সংলাপ করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আজ বৃহস্পতিবার টেলিভিশন, রেডিও ও অনলাইন সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সঙ্গে ইসির সংলাপ চলছে।

সকাল সোয়া ১০টার দিকে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবন মিলনায়তনে গণমাধ্যমের সঙ্গে দ্বিতীয় দিনের সংলাপ শুরু হয়। সংলাপে সভাপতিত্ব করছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। আজকের সংলাপে টেলিভিশন, রেডিও ও অনলাইন সংবাদমাধ্যমের মোট ৩৪ জন প্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ইসি।

ইসির তালিকার ক্রমানুসারে আজ সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত বাসসের প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, এনটিভির প্রধান বার্তা সম্পাদক খায়রুল আনোয়ার, এটিএন বাংলার হেড অব নিউজ জ ই মামুন, চ্যানেল আইয়ের পরিচালক শাইখ সিরাজ, আরটিভির সিইও সৈয়দ আশিক রহমান, একুশে টিভির হেড অব নিউজ রাশেদ চৌধুরী, বাংলা ভিশনের হেড অব নিউজ মোস্তফা ফিরোজ, সময় টিভির বার্তা প্রধান তুষার আবদুল্লাহ, ইনডিপেনডেন্ট টিভির নির্বাহী সম্পাদক খালেদ ‍মুহিউদ্দীন, মাছরাঙা টিভির প্রধান বার্তা সম্পাদক রেজোয়ানুল হক, একাত্তর টিভির প্রধান সম্পাদক মোজাম্মেল বাবু, চ্যানেল ২৪–এর এডিটর ইনপুট তালাত মামুন, যমুনা টিভির প্রধান বার্তা সম্পাদক ফাহিম আহমেদ, ডিবিসি নিউজের সিইও মঞ্জুরুল ইসলাম, মোহনা টিভির বার্তা সম্পাদক মুস্তাফিজুর রহমান, এসএ টিভির বার্তা সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, দীপ্ত টিভির বার্তা সম্পাদক মাহমুদুল করিম, এশিয়ান টিভির প্রধান বার্তা সম্পাদক বিল্লাল হোসাইন, রেডিও টুডের বার্তা প্রধান সেলিম বাশার, ভয়েস অব আমেরিকার বাংলাদেশ প্রতিনিধি আমির খসরু, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক এস এম হারুন-উর-রশীদ সংলাপে যোগ দিয়েছেন।

বৈঠকের কার্যপত্রে দেখা যায়, কর্মপরিকল্পনার সাতটি বিষয় ছাড়াও প্রাসঙ্গিক অন্যান্য বিষয়েও গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের মতামত শুনতে চাইবে ইসি। গতকাল বুধবার গণমাধ্যমের সঙ্গে ইসির প্রথম দিনের সংলাপ হয়। এদিন বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদক, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক ও সাংবাদিক নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করে ইসি। সংলাপে আমন্ত্রিত ৩৬ জনের মধ্যে অংশ নেন ২৬ জন।

প্রথম দিনের সংলাপে অংশ নেওয়া গণমাধ্যমের প্রতিনিধিরা বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে ইসিকে রাজনৈতিক দলগুলোর আস্থা অর্জন করতে হবে। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য প্রয়োজন প্রধান দুই দলের মধ্যে সমঝোতা। তবে নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন, ‘না’ ভোট প্রবর্তনসহ কয়েকটি বিষয়ে পক্ষে-বিপক্ষে মত দেন গণমাধ্যমের প্রতিনিধিরা।

ইসি গত ৩১ জুলাই সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের নিয়ে সংলাপ শুরু করে। গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের সঙ্গে সংলাপ শেষে ২৪ আগস্ট থেকে রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ইসির সংলাপ শুরুর পরিকল্পনা রয়েছে।