বান্দরবানে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হল শোক দিবস

বান্দরবানে নানা আয়োজনের মধ্যেদিয়ে স্বাধনীতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী শোক দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সব সরকারি,আধা সরকারি,স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,বেসরকারি ভবনগুলোতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে।

সকাল সাড়ে ৭টায় জেলা শহরের বঙ্গবন্ধু মুক্তমে বঙ্গবন্ধ প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি। পরে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগ এবং জেলা আওয়ামীলীগসহ দলের অঙ্গ সংগঠন গুলোর পক্ষে থেকে বঙ্গবন্ধ প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। এছাড়াও ধর্মীয় প্রতিষ্টান গুলোতে কোরআনখানি, মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ প্রার্থনা এবং জেলা শিশু একাডেমীতে জাতীয় শোক দিবসের সাথে সংগতিপুর্ণ কবিতা পাঠ, রচনা ও চিত্রাংক প্রতিযোগিতা এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টান গুলোতে জাতীয় শোক দিবসের আলাচনাসভা অনুষ্টিত হয়।

দিবসটি উপলক্ষে সকালে জেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে মিলাদ মাহফিল অনুষ্টিত হয়েছে। সকাল ১১টায় স্থানীয় রাজার মাঠ থেকে জেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো শোক র‌্যালী বের করে। র‌্যালীটি জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শহরের বঙ্গবন্ধু মুক্ত মে এসে শেষ হয়। এছাড়াও পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগে জেলা পরিষদ সভাপক্ষে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা আয়োজন সভা অনুষ্টিত হয়েছে। জেলা পরিষদ দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসুচীর আয়োজন করেন। প্রতিটি অনুষ্টানে পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু মুক্ত মে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়। আলোচনা সভা প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদর এমপি। অন্যান্যদের মধ্যে জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, আ লিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ, পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য লক্ষী পদ দাশ, মোজাম্মেল হক বাহাদুরসহ সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় প্রতিমন্ত্রী বক্তব্যে বলেন,‘শোককে শক্তিতে পরিণত করতে পারলেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি সঠিক সম্মান জানিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পূর্ণ বাস্তবায়ন সম্ভব। আদর্শিক রাজনীতির ধারা বৃহত্তর পর্যায়ে ফিরিয়ে আনতে পারলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন হবে। গরীব মানুষের প্রতি অকৃত্রিম দরদী বঙ্গবন্ধু তাদের ভাগ্যেন্নয়নের স্বপ্ন দেখতেন এবং তাদের দুঃখের রাত্রির অবসানে বিভোর থাকতেন। তিনি আরো বলেন,বাংলাদেশ আজ গরীব রাষ্ট্র নয়, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা গরীবী হটিয়ে দেশকে মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করেছেন। তাই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার স্বপ্ন বাস্তবায়ন আর দূরে নয়।

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিদি