মেয়াদ পূরণের আগেই পদচ্যুত হলেন ভারতের সেন্সর বোর্ড (সিবিএফসি) প্রধান পেহলাজ নিহালানি। দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই সেন্সর বোর্ড প্রধান নিহালানিকে নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে আসছিলেন চলচ্চিত্র প্রযোজক ও নির্মাতারা। তাই সময়ের আগেই ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াতে হলো তাকে।

দীর্ঘদিন ধরেই পেহলাজ নিহালানির বিরুদ্ধে রক্ষণশীল মনোভাব ও সিনেমা দৃশ্যে অতিমাত্রায় কাঁচি চালানোর অভিযোগ করে আসছিলেন নির্মাতারা। তাই তিন বছরের মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার আগেই পদচ্যুত হলেন তিনি। তার স্থালিভিষিক্ত হয়েছেন বিজ্ঞাপন নির্মাতা ও গীতিকার প্রসূন যোশি। ‘উড়তা পাঞ্জাব’, ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বোরখা’ ও ‘বাবুমশাই বন্দুকবাজ’ সহ একাধিক সিনেমায় অন্যায্য কাঁচি চালানো ও চলচ্চিত্র নির্মাতাদের নানা ভাবে অপমান করা সহ বেশ কিছু অভিযোগ উঠেছে পেহলাজ নিহালাজির বিরুদ্ধে।

এ প্রসঙ্গে পেহলাজ নিহালানি বলেন, “শুরু থেকেই আমাকে এ পদ থেকে তাড়ানোর চক্রান্ত করে আসছিলেন অনেকে। তাদের সে চেষ্টা আজ সফল হয়েছে। আমাকে ‘রক্ষণশীল’ বলে থাকেন অনেকে। কিন্তু আমার তাতে কোনো দুঃখ নেই। উদারতার নামে অশ্লীলতাকে প্রশ্রয় দিইনি আমি আর তা নিয়ে আমি গর্বিত।” এছাড়াও কদিন আগেই নারী প্রযোজক কিরণ শ্যাম শ্রফকে তার পোশাক নিয়ে কটাক্ষ করেন কতিপয় সেন্সর বোর্ড সদস্য।

নতুন সেন্সর বোর্ড প্রধানকে শুভকামনা জানিয়ে তিনি বলেন, “আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে দুর্নীতি ও সেন্সর জট অনেক কমিয়ে এনেছিলাম। আশা করি নতুন সদস্যরা এ বিষয়টিকে নষ্ট করবেন না। তাদের প্রতি আমার শুভকামনা।”