নির্বাচনে পক্ষপাতের কিছু প্রমাণ পেলেই ব্যবস্থা

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্ধারিত ব্যয়ের বেশী বা অতিরিক্ত টাকা খরচের প্রমাণ পেলেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। শনিবার সকালে চট্টগ্রামের কর্ণফূলী উপজেলা নির্বাচন নিয়ে কর্ণফুলী উপজেলা মিলনায়তনে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত এই সমন্বয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহাদাত হোসেন চৌধুরী (অব.) এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার বাহিনী সবসময় নিয়োজিত থাকবে। নিরপেক্ষ ও অবাধ নির্বাচনের জন্য সকল ধরনের ব্যবস্থা করতে হবে। নির্বাচন কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, এ নির্বাচনে পক্ষপাতের কোন সুযোগ নেই। এরকম কিছুর প্রমাণ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, সমর্থকদের নিয়ন্ত্রণ করবেন। যদি তারা নির্বাচনের আগে আপনাদের কথা না শোনে তাহলে নির্বাচনের পরে এদের কিভাবে নিয়ন্ত্রণ করবেন। আপনারা আচরণবিধি মেনে চলুন। নির্বাচনী যে ব্যয় নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে এর চেয়ে বেশি টাকা খরচ করার প্রমাণ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসব দাবির প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশনার বলেন, ভোটকেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ছাড়াও ম্যাজিস্ট্রেট মোতায়েন থাকবে। তাই সিসিটিভির প্রয়োজন হবে না।

এছাড়াও মোবাইল ফোনে এখন ভিডিও ধারণ হয়ে যাচ্ছে। সুতরাং অনিয়মের কোনো সুযোগ নেই বলে জানান নির্বাচন কমিশনার।