তুর্কমেনিস্তানের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বৈঠক

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বাংলাদেশে তুর্কমেনিস্তানের অনিবাসী রাষ্ট্রদূত পারাখাত দুর্দোয়েভ। রোববার সচিবালয়ে প্রতিমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় তারা পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

আগামী ২৮ ও ২৯ নভেম্বর তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাদে এনার্জি চার্টারের ২৮তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সাক্ষাতে সম্মেলনের চেয়ারম্যান তুর্কমেনিস্তানের মন্ত্রিপরিষদের ডেপুটি চেয়ারম্যান মাকসাত বাবেয়ভ ও ইন্টারন্যশনাল এনার্জি চার্টারের মহাসচিব আরবান রুসনাক স্বাক্ষরিত একটি আমন্ত্রণপত্র প্রতিমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন।

রাষ্ট্রদূত ট্যাপি প্রকল্পে অংশগ্রহণে বাংলাদেশের আগ্রহকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, পেট্রো প্রোডাক্ট সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দু’দেশের আরও কাজ করার সুযোগ রয়েছে। পাইপ লাইনের মাধ্যমে তুর্কমেনিস্তানের গ্যাস চীন হয়ে হংকং যাচ্ছে। সিএনজিও দেয়া হচ্ছে আফগানিস্তান, ইরান, চীনকে। ট্যাপির কাজও এগিয়ে চলছে। বাংলাদেশ, তেল-গ্যাস অনুসন্ধান, উৎপাদন ও সঞ্চালনে তুর্কমেনিস্তানের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে পারে।

প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এ সময় বাংলাদেশের জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতের সম্ভাবনা নিয়ে রাষ্ট্রদুতের সঙ্গে আলোচনা করেন। তিনি বলেন, ট্যাপি গ্যাস সঞ্চালন লাইনটি এ অঞ্চলে সম্ভাবনার নতুন দ্বার উন্মোচন করবে। আমরা এ লাইনটিতে অংশগ্রহণ করতে আগ্রহী। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে প্রচুর গ্যাস প্রয়োজন। ট্যাপির জন্য একটি সুনির্দিষ্ট টাইমলাইন পেলে গ্যাস মাস্টারপ্ল্যানে এটাকে সংযুক্ত করা যেতে পারে।