পাকিস্তানে যৌন হয়রানির অভিযোগ তদন্তে বিশেষ কমিটি গঠন

পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ ইমরান খানের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তদন্তে বিশেষ কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আজ শনিবার জাতীয় পরিষদ এ সিদ্ধান্ত নেয়। এতে করে বড় ধরনের সংকটে পড়লেন ইমরান খান। ইমরান খানের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন তাঁরই দলের প্রসিদ্ধ নারী আইনপ্রণেতা আয়েশা গুলালাই।

প্রধানমন্ত্রী শহিদ খাকান আব্বাসি তাঁর মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণের পরপরই পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ও দেশটির ক্রিকেট দলের সাবেক দলনেতা ইমরান খানের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ তদন্তে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করতে বলেন। পিটিআইয়ের নেত্রী ও জাতীয় পরিষদের সদস্য আয়েশা গুলালাই ইমরান খানের বিরুদ্ধে ‘অশোভন’ খুদে বার্তা (এসএমএস) পাঠানোর অভিযোগ তোলেন। এ অভিযোগ এনে তিনি পিটিআই ছাড়েন।

তবে ইমরান খান এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, ক্ষমতাসীন দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ (পিএমএল-এন) তাঁকে (আয়েশা) কিনে নিয়েছে এবং তাঁকে ব্যবহার করছে। নওয়াজ শরিফের পাকিস্তান মুসলিম লিগের কথা উল্লেখ করে গতকাল শুক্রবার বেসরকারি একটি টিভি চ্যানেলকে ইমরান খান বলেন, ‘পিএমএল-এনের এটা পরীক্ষিত পদ্ধতি।’

প্রধানমন্ত্রী আব্বাসি আইনপ্রণেতাদের উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে ইমরান খানের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ তদন্তে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করতে বলেন। তিনি বলেন, তদন্ত শেষে ওই কমিটি জাতীয় পরিষদে প্রতিবেদন দাখিল করবে, যাতে ‘বিষয়টির একটি সুরাহা হয়’। আব্বাসি আরও বলেন, পিটিআইপ্রধান ও গুলালাই উভয়ই শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব, তাই ওই অভিযোগ তদন্তে বিশেষ কমিটি গঠন করা উচিত।

জাতীয় পরিষদ পরে প্রধানমন্ত্রীর ওই প্রস্তাব পাস করে এবং কমিটিকে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়া নির্দেশ দেয়।