কুড়িয়ে পেয়েও ফেরত দিলেন ২২টি স্বর্ণের বার এবং ৩ হাজার ইউরো

জার্মানীর রাজধানী বার্লিনে বসবাসরত এক মুসলিম ২২টি স্বর্ণের বার এবং ৩ হাজার ৫শ’ ইউরো কুড়িয়ে পাওয়ার পর তা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করেছেন।

জার্মানীতে বসবাসকারী তুর্কি বংশোদ্ভুত ওই মুসলিম স্বর্ণ ও ইউরো ভর্তি ব্যাগটি বার্লিনের নিউ কোলন এলাকায় একটি গাছের নিচে কুড়িয়ে পান। মূল্যবান ব্যাগটি পাওয়ার পর তিনি তা স্থানীয় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। পুলিশ ইউরো ও স্বর্ণ ভর্তি ব্রিফকেসে থাকা নথিপত্র থেকে মূল মালিকের সন্ধান পেয়ে তাকে সেগুলো হস্তান্তর করেন। তিনি বলেন, ব্রিফকেসটি সাইকেল লক করার সময় নিচে রাখেন এবং পরে তা নিতে ভুলে যান।

নিউ কোলন এলাকার পুলিশ কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে একটি টুইট করলে তা জানাজানি হয়। এর পর থেকে ওই মুসলিমকে একজন চমৎকার সৎ মানুষ ও বীর বলে আখ্যা দেওয়া হয়। ৫৬ বছর বয়সী ওই মহৎ লোকটির নাম ইয়াকুব ইলমায। ২০০৪ সালে এক দুর্ঘটনায় তার শরীরের ৬০ শতাংশ অঙ্গ অক্ষম হয়ে যায়। এর পর থেকে তিনি বার্লিনে একটি ছোট-খাটো ব্যবসা করে জীবন নির্বাহ করে আসছেন। তার এমন সৎকাজের জন্য পুরস্কার হিসেবে তাকে ১ হাজার ইউরো দেওয়া হয়। ইয়াকুব জানিয়েছেন, এই ইউরো দিয়ে তিনি মাতৃভূমি তুরস্ক সফরে যাবেন।

জার্মানীর আইন অনুযায়ী, কেউ হারানো কোনো কিছু খুঁজে পেলে সে ওই সম্পত্তির ৩ থেকে ৫ শতাংশ পর্যন্ত মালিকানা দাবি করতে পারেন। ইয়াকুব তাও করেননি। অবশ্য বার্লিন শহর কর্তৃপক্ষ মূল মালিকের কাছ থেকে ১০ শতাংশ চার্জ আদায় করে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা করবে।