ভাগ্য বদলাতে স্ত্রীসহ ঢাকায় আসেন সজল। ভেবেছিলেন চাকরি হবে। কিন্তু চাকরি পান না। বাধ্য হলেন লুকিয়ে বেলুন বিক্রি করতে। মাহমুদ দিদারের রচনা ও পরিচালনায় ‘ভালোবাসা তারপরও’ নাটকে এমন চরিত্রেই দেখা এই জনপ্রিয় অভিনেতাকে।

‘ভালোবাসা তারপরও’ নটকের এই চরিত্রটি করার জন্য বেশ খাটাখাটনি করতে হয়েছে এই অভিনেতাকে। শাহবাগসহ বেশ কিছু জায়গায় গিয়ে বেলুন বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলতে হয়েছে। তাঁদের কথা বলা, বিক্রির পদ্ধতি, আচরণ খেয়াল করতে হয়েছে। তারপরই ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছেন সজল। আজ রাত ৯টা ৫ মিনিটে এনটিভিতে প্রচারিত হবে এই একক নাটকটি।

বর্তমানে দর্শকদের কাছে এখনকার নাটকগুলো বেশ ভালোই সাড়া পাচ্ছে। এসম্পর্কে সজল বলেন – ‘এখন নাটক দেখার অনেক মাধ্যম রয়েছে। তবে আমার মনে হয়, ঢাকার বাইরের দর্শক বেশি নাটক দেখেন। কয়েক দিন আগে দিদারের আরও একটি নাটকের শুটিংয়ের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া গিয়েছিলাম। সেখানে দর্শনার্থীর চাপে আমরা শট দিতে পারিনি। সবাই আমার অভিনীত বিভিন্ন নাটকের গল্প বলছিলেন। তখন বুঝেছি, মানুষ নাটক দেখেন।’

সম্প্রতি ‘হারজিৎ’ নামের একটি ছবিতে মাহির বিপরীতে কাজ করেছেন এই অভিনেতা। বেশির ভাগ শুটিং শেষ। শুধু গানের শুটিং বাদ আছে। জানা যায়, দেশের বাইরে গানের শুটিং করতে যাওয়ার কথা রয়েছে। এ বছরের শেষে বা আগামী বছরের শুরুতে ছবিটি মুক্তি পেতে পারে।