ভারতে গরুর জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় করার প্রস্তাব

ভারতের ধর্ম, সরকার ও রাজনীতিতে গরু ইস্যু থামছেই না। এবার গরুর জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় করার প্রস্তাব দিয়েছেন ক্ষমতাসীন হিন্দুত্ববাদী ভারতীয় জনতা পার্টি-বিজেপি’র সভাপতি অমিত শাহ। উত্তরপ্রদেশের লক্ষ্ণৌতে একটি সংবাদ সম্মেলনে বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ জানিয়েছেন গরুর জন্য আলাদা মন্ত্রণালয়ের ভাবনা চিন্তা চলছে।

অমিত শাহকে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে জবাবে মি. শাহ বলেন, “অনেক পরামর্শ, দরখাস্ত এসেছে। এ নিয়ে ভাবনা চিন্তা চলছে”। ভারতের শুধুমাত্র একটি রাজ্যে গরুদের জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় আর দপ্তর রয়েছে। দুই মন্ত্রী ছাড়াও সেখানে ডিরেক্টর থেকে শুরু করে চতুর্থ শ্রেণীর কর্মী – সব মিলিয়ে ২৩ জন কাজ করেন। রাজস্থানের বিজেপি শাসিত সরকারের অধীনে গো-পালন মন্ত্রী, রাষ্ট্রমন্ত্রী এবং একটি নির্দেশনালয় রয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকার আর অন্য সব রাজ্যেই গো-পালনের বিষয়টি প্রাণী সম্পদ বিকাশ দপ্তরের আওতাধীন। তবে কয়েকটি বিজেপি শাসিত রাজ্যে আইন করে গো-রক্ষা কমিশন তৈরি হয়েছে। তারা গো-পালন, গরু পাচার রোধ প্রভৃতি কাজ দেখাশোনা করে থাকে। হরিয়ানাতে আবার গো-রক্ষার জন্য পুলিশের একটি বিশেষ বাহিনীও রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার যদি গরুর জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় তৈরি করে, তার কাজ কী হবে, কেমন হবে সেটির আকৃতি, তা নিয়ে অবশ্য এখনও কিছুই জানা যায় নি।