বিয়েতে অনীহা থাকলেও এবার বাবা হতে আগ্রহী বলিউডের সবচেয়ে যোগ্য অবিবাহিত পুরুষ সালমান খান। পঞ্চাশ পেরোলেও তাই সংসারী হওয়ার কোনো খবর নেই তাঁর। কিন্তু ইদানীং সন্তানের বাবা হওয়ার শখ জেগেছে সালমানের।

সালমান খানের সঙ্গে এখন পর্যন্ত বলিউডের অনেক নারীর নাম জুড়েছে। একের পর এক প্রেম করে যেতে কোনো আপত্তি নেই এই অভিনেতার। কেবল বিয়েতেই যত অনীহা। এই জীবনে বিয়ে করবেন কি না, সে বিষয়েও নাকি যথেষ্ট সন্দেহ আছে। তবে সম্প্রতি ফিল্মফেয়ার পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সাল্লু তাঁর গোপন এক ইচ্ছার কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘সময় তো আর ফুরিয়ে যাচ্ছে না। আমি নিশ্চিত আমার বয়স যখন সত্তর হবে, তখন আমার সন্তানের বয়স হবে কুড়ি। আর সে সময় হয়তো আমি বিয়ের কথা ভাবতে পারি।’ এরপর এই ‘টিউবলাইট’ অভিনেতা আরো বলেন, ‘আমি এখন বা শিগগিরই সন্তানের বাবা হতে চাই। তিন-চার বছরের মধ্যে আমি নিজের সন্তান নিতে চাই। আর এর একমাত্র কারণ হলো আমি চাই আমার মা-বাবা যেন আমার সন্তানকে দেখে যেতে পারেন। অবশ্য বিয়ে করব কি না, সে বিষয়ে এখনো বেশ সন্দেহ আছে। যদিও বিয়ে ছাড়া সন্তান পাওয়া একটু কঠিন বটে। কিন্তু আমি সেটার ব্যবস্থা করে নেব।’

সালমান এখন রোমানিয়ান মডেল ইউলিয়া ভানতুরের সঙ্গে প্রেম করছেন বলে কথিত আছে। সালমান কখনোই ইউলিয়াকে প্রেমিকা হিসেবে পরিচয় দেন না যদিও। তবে, সালমানের বাড়িতে ঘন ঘন যাতায়াত ও পারিবারিক সব অনুষ্ঠানেই এই মেয়ের উপস্থিতি দেখা যায়। তাঁরা একসঙ্গে থাকছেন এমন গুজবও বলিউড পাড়ায় শোনা যায়। সালমান খান কি তাহলে ইউলিয়ার সন্তানের বাবা হওয়ার কথা ভাবছেন নাকি তুষার কাপুর আর করণ জোহরের মতো সারোগেসির পথ বেছে নেয়ার কথা ভাবছেন এখনো জানা যায়নি।

কিন্তু ভারতে শিগগিরই বাণিজ্যিক সারোগেসি বন্ধ হতে যাচ্ছে। নতুন আইনে নিঃসন্তান বিবাহিত দম্পতি বাদে অন্য কেউ টাকার বিনিময়ে গর্ভ ভাড়া নিতে পারবেন না।