অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের বেতন সঙ্কটের অবসান

বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের বেতন সঙ্কট। অবশেষে সমাপ্তি হচ্ছে এক মাস ধরে চলা পারিশ্রমিক নিয়ে ক্রিকেটার এবং বোর্ডের যুদ্ধ। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) শেষ পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিল, সঙ্কটের এখানেই সমাপ্তি টানতে হচ্ছে। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের স্বার্থেই ক্রিকেটারদের দাবির মুখে পুরনো অবস্থায় ফিরে আসার ঘোষণা দিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। ক্রিকইনফো জানিয়েছে এ খবর।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার স্বাধীন বোর্ড অব ডিরেক্টরসের সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল নতুন পারিশ্রমিক মডেল প্রনয়নের। যার ওপর ভিত্তি করে রাজস্ব বন্টনের নতুন নিয়ম প্রবর্তন করে সিএ। কিন্তু ক্রিকেটারদের সংগঠন অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশন (এসিএ) এই নতুন মডেল নিয়ে আপত্তি জানায়। তাদের বক্তব্য নতুন মডেল অনুসারে শুধুমাত্র জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাই উপকৃত হবে; কিন্তু সারা দেশব্যাপি আরও শত শত পেশাদার ক্রিকেটার ক্ষতিগ্রস্থ হবে।

এ কারণে নতুন মডেলের বিরোধীতা করে এসিএ। যে কারণে নতুন চুক্তিতে স্বাক্ষরও করেনি অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা। এর ফলে ১ জুলাই থেকে বেকার হয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়ার ২৩০ জনেরও বেশি পেশাদার ক্রিকেটার এবং নারী ক্রিকেটাররা। গত একমাস এ নিয়ে চলছে দু’পক্ষের যুদ্ধ।

এরই মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকায় অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের সফর বাতিল করে দিয়েছে ক্রিকেটাররা। শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর। ১৮ আগস্ট ঢাকায় আসার কথা রয়েছে স্টিভেন স্মিথ এবং ডেভিড ওয়ার্নারদের। বাংলাদেশ সফরের পর অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের রয়েছে ভারতে ওয়ানডে সফর। এরপর ঘরের মাঠে অ্যাশেজ সিরিজ। সঙ্গে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে স্পন্সর এবং সম্প্রচার স্বত্তাধীকারি পক্ষগুলোর কোটি কোটি ডলারের যে চুক্তি রয়েছে, সেগুলোও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছিল।

সব পরিস্থিতি বিবেচনা করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সেই স্বাধীন বোর্ড অব ডিরেক্টরসের সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হলো ‘পারিশ্রমিক যুদ্ধে’র অবসান ঘটানোর। সিএর প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড এবং এসিএর মুখপাত্র অ্যালিস্টার নিকলসনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সমঝোতার ভিত্তিতে নতুন পে মডেল তৈরি করার জন্য এবং খুব দ্রুত ক্রিকেটারদেরকে সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করানোর জন্য।