বলিউডে পা রাখছেন জাভেদ পুত্র মীজান

‘বাজিরাও মস্তানি’ খ্যাত পরিচালক তাঁর আগামী ছবির জন্য নতুন মুখের সন্ধানে ছিলেন। আর তাই বানসালি তাঁর প্রযোজিত ছবির জন্য নতুন মুখ হিসেবে জাভেদ পুত্র মীজানকে চান বলে জানা গেছে। 

বলিউডে এবার মীজানের অভিষেক হতে চলেছে। আর তাঁর বিপরীতে থাকবেন চিত্র নির্মাতা এবং পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালির ভাগনি শারমিন। বলিউডের মাটিতে একের পর এক তারকার সন্তানেরা পা রাখতে চলেছেন। সাইফ-অমৃতা, শ্রীদেবী, সানি, সুনীলের পর এবার বলিউডি হিন্দি চলচ্চিত্রের দুনিয়ায় আসতে চলেছেন অভিনেতা জাভেদ জাফরির পুত্র। বলিউডে গুঞ্জন, মীজান এবং শারমিনকে বানসালির আগামী ছবিতে দেখা যাবে। ছবিটি প্রযোজনা করবে তাঁর প্রযোজনা সংস্থা। নাম ঠিক না হওয়া ছবিটি পরিচালনা করার কথা মারাঠি ছবির পরিচালক মঙ্গেশ হাদওয়ালের। মীজান এর আগে বানসালির অত্যন্ত সফল ছবি ‘বাজিরাও মস্তানি’-তে সহ পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন। জাভেদ পুত্র তাঁর বাবার মতোই নাচে অত্যন্ত পারদর্শী। শুধু তাই নয়, মীজান মার্শাল আর্টেরও প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। নিউইয়র্ক থেকে অভিনয়ের কোর্স করে এসেছেন এই বলিউড অভিনেতার পুত্র। বানসালির আগামী ছবির জন্য মীজান অডিশনের মাধ্যমেই এসেছেন বলে জানা গেছে।

জাভেদ জাফরি টুইট করে তাঁর পুত্রের বলিউডে পা রাখার বিষয়টি সত্য বলে জানান। বানসালি তাঁর বোন বেলা সায়গলের কন্যা শারমিনকে ছবির নায়িকা হিসেবে নির্বাচন করেছেন। বানসালির সঙ্গে বোন বেলার সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। তাঁর অধিকাংশ ছবির সম্পাদনার কাজ বেলা করেছেন। সঞ্জয়ের এই ছবিটি জীবনের বাস্তব ঘটনার ওপর নির্মাণ করা হবে। বানসালির ছবির হাত ধরে বলিউডে এক নতুন জুটির অভিষেক হতে চলেছে। তবে বলিউডে পা রাখার আগেই মীজান খবরের শিরোনামে চলে এসেছেন। তাঁকে অমিতাভ বচ্চনের নাতনি (শ্বেতার কন্যা) নভ্যা নাভেলি নন্দার সঙ্গে মুম্বাইয়ের বিভিন্ন স্থানে দেখা গেছে। তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে কিছু ধোঁয়াও উঠেছে।

আগামী বছর থেকে ছবির কাজ শুরু হবে বলে জানা গেছে।