তল্লাশির নামে নারী হেনস্তা, ফুলবাড়ী থানার এসআই বরখাস্ত

কুড়িগ্রামে তল্লাশির নামে হেনস্তা করার ঘটনায় ফুলবাড়ী থানার উপ-পরিদর্শক ইসমাইল হোসেন কে বরখাস্ত করা হয়েছে।

জানা যায়, বুধবার উপজেলার পানিমাছকুটি গ্রামের আবুল ফাত্তার স্ত্রী শাহানাজ বেগম ও স্বজন ফরিদা পারভিন আত্মীয়ের বাড়ী থেকে সন্ধায় নিজ বাড়ীতে ফেরার পথে সন্ধ্যায় ঠাকুরপাঠ এলাকায় আসলে ফুলবাড়ী থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই.) ইসমাইল হোসেন তাদের বহনকৃত অটো রিক্সটি আটক করে শাহানাজ বেগমের শরীরে মাদক বাধাঁ আছে বলে অটোর অন্য ৫ জন যাত্রীর সবাইকে নামিয়ে হেনস্থা করেন। এ খবর ফুলবাড়ীতে ছড়িয়ে পড়লে ওইদিন রাতেই বিক্ষুব্ধ জনতা দায়ী পুলিশের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি চেয়ে থানার সামনে বিক্ষোভ মিছিল করে।

এ ঘটনায় নাগেশ্বরী বি-সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামান সরেজমিন তনন্ত পূর্বক ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপারকে এস আই ইসমাইল হোসেনকে বদলীর জন্য সুপারিশ করেন।

এরই প্রেক্ষিতে রোববার দুপুরে বিতর্কিত পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এস.আই.) ইসমাইল হোসেনকে কুড়িগ্রাম পুলিশ লাইনে বরখাস্ত করা হয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে,বিতর্কিত এই পুলিশের উপ-পরিদর্শক কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী থানায় যোগদান করার পর থেকে একের পর এক বিভিন্ন অপকর্মের সঙ্গে জড়িত হয়ে পড়েন। বিশেষ করে মাদক আটক করার নামে বিভিন্ন অসহায় মানুষকে মামলায় ফাঁসানোসহ বিভিন্ন অপরাধ করেন তিনি। লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে নিরহকে ফাঁসাতে চার্জশীটে নাম দিয়ে জেল খাটান তিনি।

 

মোঃ মনিরুজ্জামান, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি